default-image

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কাশিমপুর ভূইয়াপাড়া এলাকায় গ্যাস বিস্ফোরণে একই পরিবারের তিনজন দগ্ধ হয়েছেন। আজ শনিবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে এই গ্যাস বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে ঘরের একটি দেয়াল ধসে পড়েছে। এতে একই পরিবারের তিন সদস্য দগ্ধ হয়েছেন।

দগ্ধ ব্যক্তিরা হলেন কাশিমপুর ভূইয়াপাড়া এলাকার মো. সুমন মিয়া (৩৫), তাঁর স্ত্রী মরিয়ম বেগম (৩০) ও তাঁদের শিশুসন্তান সাকিন মাহামুদ (৫)।

স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কাশিমপুর ভূইয়াপাড়া এলাকার জাকির হোসেন তাঁর বাড়িতে সেপটিক ট্যাংকের ওপরে কয়েকটি ঘর তৈরি করে ভাড়া দিয়েছেন। আজ ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে হঠাৎ ভাড়াটে সুমন মিয়ার ঘরের নিচে সেপটিক ট্যাংকে গ্যাস বিস্ফোরণ হয়। এতে বিকট শব্দ হয়ে ঘরে আগুন ধরে যায় এবং তিনটি কক্ষের দরজাসহ দেয়াল ধসে পড়ে। বিকট শব্দ পেয়ে আশপাশের লোকজন এসে তাঁদের উদ্ধার করেন। পরে চিকিৎসার জন্য তাঁদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

ওই এলাকার বাসিন্দা মনছুর হোসেন জানান, আহত সুমন মিয়া দীর্ঘদিন ধরে জাকির হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। শিশু সাকিন বাড়ির পাশের একটি মাদ্রাসার লেখাপড়া করে।

কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবে খোদা জানান, সেপটিক ট্যাংকের ওপর রান্নাঘর ছিল। রান্নার জন্য আগুন জ্বালাতে গিয়ে হঠাৎ গ্যাস বিস্ফোরণ ঘটে। এতে একই পরিবারের তিনজন দগ্ধ হন। এ ছাড়া ওই বাড়ির তিন রুমের দেয়াল ধসে পড়ে।
ওসি মাহবুবে খোদা আরও বলেন, বিস্ফোরণ হয়েছে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সিলিন্ডার বা সেপটিক ট্যাংকের গ্যাস থেকে বিস্ফোরণ হয়ে থাকতে পারে। তবে নিশ্চিত হওয়া যায়নি বিস্ফোরণ কোথা থেকে হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন