বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে কয়েকজনের পরিচয় পেয়েছে পুলিশ। তাঁরা হলেন চট্টগ্রাম নগরীর বাসিন্দা তাসলিমা আকতার (৪০), মাধবপুর উপজেলার বাসিন্দা মুহাম্মদ সাইফুল (২৪), একই উপজেলার হদিস মিয়া (২০) ও কুমিল্লার মুরাদ নগরের মুহাম্মদ শরিফ (২৫)। তবে চালকের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানালেও কেউ নিহত হয়েছেন—এমন খবর পুলিশের কাছে নেই।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাসটি ৫০ থেকে ৬০ জন যাত্রী নিয়ে চট্টগ্রাম নগর থেকে ছেড়ে এসে কাপ্তাইয়ের দিকে যাচ্ছিল। পথে ঘন কুয়াশায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ১০ থেকে ১২ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। তবে কোনো যাত্রী নিহত হয়েছেন—এমন কোনো খবর পুলিশ পায়নি বলে জানিয়েছে।

রাউজান নোয়াপাড়া পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন প্রথম আলোকে বলেন, আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কেউ কেউ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও ভর্তি হয়েছেন। তবে এ ঘটনায় ১০ থেকে ১২ জন আহত হলেও কেউ নিহত হয়েছেন—এমন খবর তিনি পাননি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন