বিজ্ঞাপন

কুমিরা ফায়ার সার্ভিসের লিডার এমরাম হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, চালবোঝাই ট্রাকটি রংপুর থেকে চট্টগ্রামের দিকে যাচ্ছিল। ট্রাকের চালক ও সহকারী ছাড়া বাকি সাতজন ঈদের ছুটি শেষে চট্টগ্রামে তাদের কর্মস্থলে ফিরছিলেন। মহাসড়কে আন্তজেলা বাস চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রীরা ট্রাকটিতে বোঝাই করা চালের বস্তার ওপর শুয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন।
এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ঘুম চোখে চালক গাড়ি চালানোর সময় নিয়ন্ত্রণ হারালে ট্রাকটি রাস্তার পাশে উল্টে যায়। এতে ট্রাকের ছাদে ঘুমিয়ে থাকা সাত যাত্রী ছিটকে পড়েন। ঘটনাস্থলে শরীফুল ইসলাম নিহত হন। বাকি আটজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

চট্টগ্রাম মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আলাউদ্দিন তালুকদার প্রথম আলোকে বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত নবী ও আতিকুর রহমান মারা যান।

বার আউলিয়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনায় হতাহত ব্যক্তিদের মধ্যে চালক ও সহকারী কারা, খুঁজে বের করা সম্ভব হয়নি। দুর্ঘটনাকবলিত ট্রাকটি উদ্ধার করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন