বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আজ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পঞ্চগড় বীর মুক্তিযোদ্ধা রেলস্টেশন থেকে পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের একটি ট্রেন ছেড়ে আসে। ওই ট্রেনে ছেলে রবিউল ইসলামকে তুলে দিতে ঠাকুরগাঁও রোড রেলস্টেশনে আসেন রশিদা বেগম। বেলা দুইটার দিকে ট্রেনটি স্টেশনে এসে পৌঁছায়। এ সময় ছেলের সঙ্গে আরও কিছুটা সময় কাটাতে নিজেও ট্রেনে ওঠেন ওই মা।

ট্রেনটি ছেড়ে দেওয়ার বাঁশি বাজাতে থাকলে তিনি তাড়াহুড়া করে চলন্ত ট্রেন থেকে লাফিয়ে প্ল্যাটফর্মে নামতে যান। এ সময় ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে তাঁর দেহ খণ্ডবিখণ্ড হয়ে যায়।

ঠাকুরগাঁও রোড রেলস্টেশনের মাস্টার আক্তারুল ইসলাম বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ও যাবতীয় আইনি প্রক্রিয়া শেষে লাশ পরিবারের কাছে হন্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন