বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এক মোটরসাইকেলে তিনজন শহর থেকে বাসস্ট্যান্ড এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। তাঁদের কারও মাথায় ছিল না হেলমেট। ওই মোটরসাইকেল থামিয়ে ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করার শাস্তি ও হেলমেট ব্যবহার না করার কুফল তুলে ধরেন পুলিশ সদস্যরা। তাঁরা আইন মেনে চলার প্রতিশ্রুতি দেন। যুবকদের হাতে গোলাপ তুলে দেন পুলিশ সদস্যরা।

পুলিশের এ ধরনের ব্যতিক্রমী উদ্যোগে খুশি মোটরসাইকেলচালক ও এলাকাবাসী। পৌর শহরের ঘোষপাড়া এলাকার বাসিন্দা খাদেমুল ইসলাম বলেন, এলাকার অনেক গাড়িচালক ট্রাফিক আইন মানতে অভ্যস্ত নন। পুলিশ এসব চালকের প্রতি সব সময় কঠোর হয়ে মামলা, জরিমানা করেন। আজ পুলিশ তাঁদের সচেতন করতে যে উদ্যোগ নিয়েছে, এটা ব্যতিক্রমী উদ্যোগ।

ঠাকুরগাঁও ট্রাফিক বিভাগের ইনচার্জ হারুন আল মাসুদ সরকার বলেন, এ এলাকার মানুষ সচেতনতার অভাবে ট্রাফিক আইন মানেন না। ট্রাফিক আইন সম্পর্কে সচেতন করতেই এই আয়োজন।

ঠাকুরগাঁওয়ের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ প্রয়োগের আগে এলাকার মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। এই সচেতনতার কার্যক্রম চালাতে গিয়ে ট্রাফিক পুলিশ বিভাগ ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন