বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, দুই সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে আটক করে পুলিশ হেফাজতে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে চিঠি লেখা হয়েছে। কমিশনের সিদ্ধান্তের আলোকে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে জাল ভোট দেওয়ার সময় জাহাজমারা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের হাজি মোজাম্মেল হক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের দুই সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও দুই পোলিং কর্মকর্তাকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে। কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাফিজ উল্লা তাঁদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

আটক দুই সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা হলেন ঐক্য ভাতা এম হোসাইনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আহমেদ রাফি ও পশ্চিম সোনাদিয়া চর ইশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ সিদ্দিক উল্ল্যা। আটক দুই পোলিং কর্মকর্তা হলেন দক্ষিণ-পূর্ব কালাম মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মুন্নি বেগম ও মধ্যম মাইজচরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ফারজানা আক্তার।

জাহাজমারা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ফখরুল ইসলাম জাল ভোট দেওয়ার সময় দুই সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও দুই পোলিং কর্মকর্তাকে হাতেনাতে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার দিনব্যাপী চরঈশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আওয়ামী লীগ প্রার্থীর অনুসারীরা কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার করে এজেন্টদের বের করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুল হালিম আজাদ।

হাতিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন বলেন, উপজেলার সাতটি ইউনিয়নে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। কোথাও কোনো প্রার্থীর এজেন্টকে কোনো কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার কোনো লিখিত অভিযোগ তিনি বিকেল পর্যন্ত পাননি। তবে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছ থেকে কয়েকজন প্রার্থীর নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণার কথা শুনেছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন