বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. ফকরুল হাসান, নড়াইল জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট নড়াইলের সভাপতি মলয় কুন্ডু, এস এম সুলতান বেঙ্গল আর্ট কলেজের অধ্যক্ষ অনাদি বৈরাগী, সুলতান শিশু ও চারুকারু ফাউন্ডেশনের পরিচালক শেখ আবদুল হানিফ, শিল্পী সুলতানের শিষ্য নড়াইল সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের চারুকলার শিক্ষক সমীর কুমার বৈরাগী প্রমুখ।

এস এম সুলতানের জীবনের শেষ দুই দশক সংসারের হাল ধরেছিলেন নীহার বালা। সুলতান তাঁকে মেয়ে পরিচয় দিতেন। বৃদ্ধ নীহার বালা সাত বছর ধরে দৃষ্টিহীন। দুই বছর ধরে তিনি শয্যাশায়ী। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি থেকে তিনি প্রতি মাসে ভাতা পান পাঁচ হাজার টাকা। বিছানায় শুয়ে-বসে দিন কাটে তাঁর। শরীরে বাসা বেঁধেছে নানা রোগব্যাধি। ওষুধ খেতে হয় নিয়মিত। কিন্তু টাকার অভাবে তিনি প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিতে পারছিলেন না। এ নিয়ে গতকাল প্রথম আলো অনলাইনে ‘ভালো নেই চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানের নীহার বালা’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন