বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম আলমগীর জাহান ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলার আসামি শামসুল আলম মণ্ডলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত বছরও ওই ব্যক্তি মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর করেছিলেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে জয়পুরহাট সদর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের শুকতাহার মধ্যপাড়া বারোয়ারি মন্দির ও শুকতাহার সর্বজনীন দুর্গামন্দিরে প্রতিমা তৈরি করা হয়। আজ সকালে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন ওই দুটি মন্দিরে গিয়ে প্রতিমাগুলোর মাথা-হাতসহ বিভিন্ন অংশ ভাঙা দেখতে পান। পরে তাঁরা ঘটনাটি স্থানীয় প্রশাসনকে জানান। খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক মো. শরীফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলার আসামি শামসুল আলম মণ্ডলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত বছরও ওই ব্যক্তি মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর করেছিলেন।

শুকতাহার মধ্যপাড়া বারোয়ারি দুর্গামন্দির কমিটির সভাপতি সবুজ কুমার মণ্ডল ও শুকতাহার সর্বজনীন দুর্গামন্দিরের সভাপতি বীরেন্দ্রনাথ প্রামাণিক বলেন, শুক্রবার গভীর রাতে দুটি মন্দিরের কয়েকটি প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়েছে। শনিবার সকালে তাঁরা মন্দিরে গেলে প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনাটি জানতে পারেন।

default-image

জয়পুরহাটের জেলা প্রশাসক মো. শরীফুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘দুটি মন্দিরের প্রতিমা ভাঙার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। প্রতিমাগুলো ভাঙার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বলা হয়েছে।’

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার (এসপি) মাছুম আহাম্মদ ভূঞা প্রথম আলোকে বলেন, দুটি মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করে শাস্তির আওতায় আনা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন