বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, পার্বতীপুর থেকে রাজশাহীগামী উত্তরা এক্সপ্রেস ট্রেনের সঙ্গে বাঁধন পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসের ওই সংঘর্ষ হয়। জয়পুরহাট থেকে পাঁচবিবি যাচ্ছিল বাসটি। পথে বাসটি পুরানাপৈল রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় ট্রেনটিও সেখানে চলে আসে। এ দুর্ঘটনার পর রংপুর বিভাগের কয়েক জেলার সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে আছে।

আজ সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ১১ জন নিহত হন। নিহত ব্যক্তিরা সবাই বাসের যাত্রী ছিলেন। কয়েকজনকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁদের মধ্যে একজন বগুড়ায় নেওয়ার সময় মারা যান। হতাহত ব্যক্তিদের নাম-পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

জয়পুরহাটের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. সালাম কবির আজ বলেন, বাস ও ট্রেনের সংঘর্ষের সময় রেলক্রসিংয়ের গেট খোলা ছিল। আর ঘুমিয়ে ছিলেন গেটম্যান।

default-image
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন