বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আজ দুপুরে ইউএনওর সরকারি মুঠোফোন নম্বর থেকে ইউএনওর পরিচয় দিয়ে উপজেলার কাংশা ইউপির চেয়ারম্যান জহুরুল হক ও মালিঝিকান্দা ইউপির চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামকে ফোন করা হয়। এ সময় চক্রটি ওই দুই ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে চাঁদা দাবি করে। তবে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানরা বিষয়টি প্রতারণা বলে বুঝতে পারেন এবং তাৎক্ষণিক তাঁরা ইউএনওকে বিষয়টি জানান।

ইউএনও ফারুক আল মাসুদ প্রথম আালোকে বলেন, একটি প্রতারক চক্র তাঁর সরকারি মুঠোফোন নম্বর ‘ক্লোন’ করে এমন কাজ করেছে বলে তিনি ধারণা করছেন। বিষয়টি অনুসন্ধান করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) জানিয়েছেন। একই সঙ্গে প্রতারণা থেকে রক্ষা পেতে সবাইকে সতর্ক থাকার জন্য তাঁর ফেসবুক আইডিতে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন বলে তিনি জানান।

ঝিনাইগাতী থানার ওসি মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, বিষয়টি তাঁরা অনুসন্ধান করে প্রতারক চক্রকে শনাক্ত করার চেষ্টা করছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন