default-image

যশোরের অভয়নগর উপজেলায় একটি ব্যক্তিগত গাড়িতে (প্রাইভেট কার) ট্রেনের ধাক্কায় চারজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে উপজেলার ভাঙ্গাগেট রেলক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে দুজন পুরুষ, একজন নারী ও একটি কন্যাশিশু রয়েছেন।

নওয়াপাড়া রেলস্টেশন সূত্র জানায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে খুলনাগামী মহানন্দা মেইল ট্রেনটি শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ভাঙ্গাগেট রেলক্রসিংয়ে পৌঁছায়। এ সময় ভৈরব সেতু পার হয়ে ব্যক্তিগত গাড়িটি ভাঙ্গাগেট রেলক্রসিং দিয়ে যশোর-খুলনা মহাসড়কে ওঠার জন্য যাচ্ছিল। রেলক্রসিংয়ে কোনো গেট বা গেটম্যান নেই। বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে ব্যক্তিগত গাড়িটি রেললাইনের ওপর উঠে পড়ে। এ সময় গাড়িটিকে প্রায় ২০০ মিটার দূরে সরকার ওয়েব্রিজের সামনে নিয়ে ফেলে ট্রেনটি। ফলে ব্যক্তিগত গাড়িটি চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই দুজন নিহত হন। তাঁদের মধ্যে একজন পুরুষ (৩৮) এবং একজন নারী (৪০) রয়েছে। খবর পেয়ে নওয়াপাড়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পথে রইসা (৫) নামের একটি কন্যাশিশু মারা যায়।

বিজ্ঞাপন
default-image

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ইফফাত শারমীন বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার আগেই শিশুটি মারা গেছে। গুরুতর আহত একজন পুরুষ (৩৮), একজন নারী (৪০) এবং এক বছরের একটি শিশুকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

খুলনায় নেওয়ার পথে আহত পুরুষ ব্যক্তিটিরও মৃত্যু হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

নওয়াপাড়া রেলওয়ে স্টেশনমাস্টার মহাসিন রেজা বলেন, ভাঙ্গাগেট রেলক্রসিংটি অবৈধ। এই রেলক্রসিং অতিক্রম করার সময় একটি প্রাইভেট কারের সঙ্গে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে খুলনাগামী মহানন্দা মেইল ট্রেনের ধাক্কায় চারজন মারা গেছেন। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

এ বিষয়ে অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি। তাঁদের পরিচয় উদ্‌ঘাটনের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য পড়ুন 0