default-image

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় একটি হাসপাতালের সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ২০ ফেব্রুয়ারি সেখানে যাওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু সফরটি বাতিলের আহ্বান জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগ। তাদের দাবি, স্থানীয় একজন ‘বিতর্কিত’ ব্যক্তির আমন্ত্রণে তিনি দিরাইয়ে আসবেন। এ ছাড়া এ কর্মসূচির বিষয়ে স্থানীয় সাংসদ কিংবা উপজেলা আওয়ামী লীগকে কিছুই জানানো হয়নি।
মঙ্গলবার দুপুরে দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের এ সংবাদ সম্মেলন হয়। এতে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
তবে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ‘স্থানীয় মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতের জন্যই এ প্রতিষ্ঠান করা হয়েছে। কিন্তু এটি দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ আছে। আমরা চালুর উদ্যোগ নিয়েছি। এটি আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন। আমি স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও জনপ্রতিনিধিদের আমন্ত্রণে সেখানে যাচ্ছি। স্থানীয় সাংসদের সঙ্গেও যোগাযোগের চেষ্টা করেছি। আমি মনে করি, বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা না করে সরকারের এই উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সবার সহযোগিতা ও যুক্ত থাকা উচিত।’

বিজ্ঞাপন

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি সোহেল আহমদ। তিনি বলেন, দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নে প্রতিষ্ঠিত জগদল ২০ শয্যা হাসপাতালটি ২০১৩ সালে উদ্বোধন করেন তৎকালীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ও প্রধানমন্ত্রীর তৎকালীন উপদেষ্টা সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী। কিন্তু উদ্বোধনের পর আর এটি চালু হয়নি। এখন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিত জগদল গ্রামের বাসিন্দা সাবেক যুগ্ম সচিব মিজানুর রহমানের আমন্ত্রণে ২০ ফেব্রুয়ারি হাসপাতালটি আবার উদ্বোধন করতে আসবেন পরিকল্পনামন্ত্রী। কিন্তু এ সফর সম্পর্কে স্থানীয় সাংসদ জয়া সেনগুপ্তা কিংবা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনকে কিছুই জানানো হয়নি। স্থানীয় সাংসদ ও আওয়ামী লীগকে পাশ কাটিয়ে বিএনপি ঘরানার লোকজনের মাধ্যমে কর্মসূচি দিয়ে মন্ত্রীর এ সফরের বিষয়টিতে স্থানীয় আওয়ামী পরিবার ব্যথিত ও ক্ষুব্ধ হয়েছে। তাই এ সফর বাতিলের জন্য পরিকল্পনামন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দিরাই পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র আজিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সিরাজ উদ দৌলা তালুকদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশিদ, লুৎফুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক অবিরাম তালুকদার, দপ্তর সম্পাদক বিকাশ রায়, দিরাই পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা যুবলীগ নেতা বিশ্বজিৎ রায়, জগদল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শিবলী আহমেদ প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন