default-image

সড়ক দুর্ঘটনায় কোমরে আঘাত পান নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়া পৌরসভার (৪, ৫, ৬ ওয়ার্ড) সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর সামসুন নাহার (৫৫)। দুর্ঘটনার ১৪ মাস পরও তিনি হাঁটতে পারেন না। দুই লাখ টাকা জোগাড় হলে অসচ্ছল এই নারী চিকিৎসা করে সুস্থ হতে পারবেন। আজ শুক্রবার নিজ বাড়িতে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি তাঁর দুরবস্থার কথা তুলে ধরেন।

কাউন্সিলর সামসুন নাহার বলেন, ২০ বছর আগে তিন সন্তানকে নিয়ে তিনি তালাকপ্রাপ্ত হন। ৯ বছর আগে স্ত্রী ও দুই সন্তান রেখে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান বড় ছেলে। মেজ ছেলে পোশাক কারখানায় চাকরি করেন এবং ছোট ছেলে রিকশা চালিয়ে তাঁর সংসার চালান। এ অবস্থায় গত বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি তিনি সড়ক দুর্ঘটনায় কোমরে গুরুতর আঘাত পান। এরপর থেকে তিনি আর হাঁটতে পারেন না। চিকিৎসক জানিয়েছেন, সুস্থতার জন্য চিকিৎসা করাতে দরকার তিন লাখ টাকা। এর মধ্যে বনপাড়ার পৌর মেয়র কে এম জাকির হোসেনের সহায়তায় এক লাখ টাকা জোগাড় হয়েছে। বাকি দুই লাখ টাকা তিনি জোগাড় করতে পারছেন না। ফলে বিছানায় পড়ে আছেন।

বনপাড়ার পৌর মেয়র কে এম জাকির হোসেনের সহায়তায় এক লাখ টাকা জোগাড় হয়েছে। বাকি দুই লাখ টাকা তিনি জোগাড় করতে পারছেন না। ফলে বিছানায় পড়ে আছেন।

সামসুন নাহার তাঁর চিকিৎসা করাতে প্রয়োজনীয় অবশিষ্ট অর্থসহায়তা প্রদানের জন্য গণমাধ্যমের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি বিনীত অনুরোধ জানান।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন