বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তার যুবকের নাম পার্থ মণ্ডল (২৪)। তিনি দেবহাটা উপজেলার বাসিন্দা। তিনি সাতক্ষীরা শহরের একটি ক্লিনিকে কাজ করেন। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় নিহত ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে পার্থ মণ্ডলকে একমাত্র আসামি করে মামলা করেন। ওই দিন সকাল আটটায় উপজেলার উত্তর টিকেট গ্রামের নদীসংলগ্ন একটি বাগান থেকে ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, পার্থ মণ্ডল ওই ছাত্রীকে উত্যক্ত করে আসছিলেন। পার্থ ওই ছাত্রীকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে ওই ছাত্রীর পরিবার সেটি প্রত্যাখ্যান করে। ২৩ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যার দিকে পার্থ ওই ছাত্রীর মুঠোফোনে খুদে বার্তা পাঠিয়ে তাকে ডেকে নিয়ে যান। মেয়েটিকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়।

দেবহাটা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফরিদ আহমেদ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের পর হত্যা মামলার আসামি পার্থ মণ্ডল ভারতে পালিয়ে যাওয়ার জন্য সীমান্তবর্তী একটি গ্রামে অবস্থান করছেন। পরে সেখানে দেবহাটা থানা–পুলিশ ও ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

সাতক্ষীরা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পরিদর্শক ইয়াসিন আলী জানান, আজ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন