এর আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলমান যুদ্ধের কোনো প্রভাব বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পড়বে না। ইউক্রেনের সঙ্গে আমাদের এমন কোনো বাণিজ্য নেই, যে কারণে আমাদের বড় কোনো ক্ষতি হবে না। রাশিয়ার সঙ্গে কিছু ব্যবসা রয়েছে। তবে তা-ও বেশি নয়। তাদের সঙ্গে এখন সবচেয়ে বড় কাজ হলো রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্প। তারা ঋণ দিয়েছে। আমরা ঋণ গ্রহণ করে কাজ করছি। সেই কাজ কোভিডের সময়েও বাধাপ্রাপ্ত হয়নি, এখনো হবে না।’

সুনামগঞ্জ হার্ট ফাউন্ডেশনের সভাপতি সৈয়দ মোনাওয়ার আলীর সভাপতিত্বে ও সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি পঙ্কজ দের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক আবদুল মালিক ও জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ কে আবদুল মুবিন। সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন হাইপারটেনশন কমিটি অব ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক সোহেল রেজা চৌধুরী। আলোচনায় অংশ নেন জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের মহাসচিব খন্দকার আবদুল আউয়াল রিজভী, সুনামগঞ্জ হার্ট ফাউন্ডেশনের সহসভাপতি হুমায়ুন মঞ্জুর চৌধুরী, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সুনামগঞ্জ জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাকিম।

এর আগে সকালে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার ফেনারবাক ইউনিয়ন কমপ্লেক্সের নতুন ভবনের উদ্বোধন করেন। সেখানে অন্যান্যের মধ্যে সুনামগঞ্জ-সিলেটের সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ শামীমা শাহরিয়ার উপস্থিত ছিলেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন