দৌলতদিয়া ঘাটে সকালে ফাঁকা, দুপুরে যানবাহনের দীর্ঘ সারি

বিজ্ঞাপন
default-image

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া নৌপথে খনন শেষে নাব্যতাসংকট অনেকটা দূর হয়। যানবাহন পারাপার স্বাভাবিক হলেও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে কয়েকটি ফেরি বিকল থাকায় যানবাহনের চাপ অব্যাহত থাকে। এরপর রোববার রাতের মধ্যে আটকে থাকা গাড়ি পারাপার শেষ করায় সোমবার সকালে ঘাট ফাঁকা হয়ে যায়। তবে দুপুরের দিকে যানবাহনের চাপ বেড়ে দীর্ঘ সারি তৈরি হয়।

এদিকে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌপথে নাব্যতাসংকট ও ভাঙনে আবার ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় অধিকাংশ ঢাকাগামী গাড়ি দৌলতদিয়া আসায় দুপুরের পর থেকে গাড়ির চাপ বাড়তে থাকে। ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে যাত্রীবাহী ও পণ্যবাহী গাড়ির সারি দীর্ঘ হতে থাকে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সোমবার দুপুরে দেখা যায়, দৌলতদিয়া ফেরিঘাট থেকে যাত্রীবাহী পরিবহন ও পণ্যবাহী গাড়ির সারি মহাসড়ক–সংলগ্ন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার পর্যন্ত দীর্ঘ হয়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের সারি আরও লম্বা হতে থাকে।

খুলনা থেকে আসা মানিকগঞ্জগামী গ্যাস সিলিন্ডারবোঝাই ট্রাকচালক ফারুক হোসেন বলেন, প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে দৌলতদিয়া ঘাটের কাছে এসে লাইনে দাঁড়িয়েছেন। এর আগে রোববার রাতে গোয়ালন্দ মোড়ে এলে পুলিশ আটকে দেয়। রাত শেষে সকালে নদী পাড়ি দিতে দৌলতদিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে দেয়। কয়েক শ গাড়ি গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় লাইন ধরে নদী পাড়ি দিতে অপেক্ষা করছে। অথচ দুপুরের আগ পর্যন্ত দৌলতদিয়ায় তেমন গাড়ি ছিল না।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

মাদারীপুর থেকে আসা আরেক পণ্যবাহী কাভার্ড ভ্যানচালক এরশাদুল ইসলাম বলেন, স্বল্প পরিসরে ফেরি চলার খবর পেয়ে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুট দিয়ে নদী পাড়ি দিতে গত শনিবার রাতে ঘাটে যান। সেখান এক দিন থাকার পর রোববার থেকে ফেরিতে উঠতে না পেরে বাধ্য হয়ে দৌলতদিয়ায় আসেন।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক মাহবুব আলী সরদার বলেন, বর্তমানে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌপথে ছোট-বড় মিলে ১৭টি ফেরি চলছে। নাব্যতা–সংকট দূর হয়ে নৌ চ্যানেল এখন অনেক স্বাভাবিক হওয়ায় আগের চেয়ে সময় কম লাগছে। ফলে ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার রাতের মধ্যেই শেষ হচ্ছে। সকাল পর্যন্ত ঘাট ফাঁকা থাকায় দু-তিনটি গাড়ি নিয়েই ফেরিগুলো ঘাট ছেড়ে যায়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় ও সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌপথে পুনরায় ফেরি চলাচল বন্ধ হওয়ায় ওই রুটের অধিকাংশ ঢাকাগামী গাড়ি দৌলতদিয়া ঘাটে আসছে। আবার অনেকে বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে ঘুরে ঢাকায় যাতায়াত করছে। সাধারণত দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের গাড়ি সকালে ছেড়ে এলে দুপুর নাগাদ দৌলতদিয়ায় এসে পৌঁছায়। সেই সঙ্গে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি রুটের গাড়ি দুপুরের পর থেকে এসে পৌঁছায় বলে বাড়তি চাপ পড়ছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন