default-image

বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে হওয়া ধর্ষণ মামলা তুলে নিতে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে মামলার বাদী তরুণী নিজেই এই অভিযোগ করেছেন।

বরিশাল বিমানবন্দর থানা সূত্র জানায়, নগর ছাত্রলীগ সভাপতি জসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে ওই তরুণী ১৯ এপ্রিল ধর্ষণের অভিযোগ এনে একটি অভিযোগ করেন। পরে তদন্ত করে ২১ এপ্রিল অভিযোগটি এজাহার হিসেবে গ্রহণ করা হয়। লিখিত অভিযোগে তরুণী উল্লেখ করেন, ২০১৯ সালের ১০ সেপ্টেম্বর জসিম উদ্দিন বাসায় ঢুকে তাঁকে ধর্ষণ করেন। এরপর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে গিয়ে জসিম তাঁকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। একপর্যায়ে তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হলে তাঁকে গর্ভপাতের ওষুধ খাওয়ানো হয় এবং নগরের সদর হাসপাতালে নিয়ে গর্ভপাত করানো হয়। এরপর তিনি জসিম উদ্দিনকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে গত ৫ মার্চ জসিম দুদিনের মধ্যে তাঁকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন

গতকাল রাত ৯টায় ১২ মিনিট ৩১ সেকেন্ডের ফেসবুক লাইভে ওই তরুণী বলেন, ‘আমি মামলা করার পর জসিম উদ্দিন বলে বেড়াচ্ছেন, তিনি নাকি রাজনৈতিক প্রতিহিংসা, ষড়যন্ত্রের শিকার। তাহলে কেন তিনি আমাকে টাকা অফার করছেন? কেন হুমকি দিচ্ছেন? কেন তিনি পালিয়ে বেড়াচ্ছেন? তিনি সামনে আসুক।’ ওই তরুণী আরও বলেন, ‘তাঁর (জসিম) টাকা আছে, ক্ষমতা আছে। তিনি হুমকি দিয়েছেন, এ রকম ১০টা মামলা খেয়ে ফেলার ক্ষমতা তাঁর আছে। আমাকে মেসেজ (খুদে বার্তা) দিয়ে এ রকম হুমকি দিচ্ছে।’

ওই তরুণী আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ‘যেহেতু তিনি (জসিম) এখনো দলীয় পদে আছেন, তাই ক্ষমতার অব্যবহার করে, টাকা দিয়ে আমার মামলা উল্টে দেওয়ার, মেডিকেল রিপোর্ট মিথ্যা প্রমাণের অপচেষ্টা চালাচ্ছেন। তিনি সব পারেন।’

লাইভে তরুণী এ–ও বলেন, জসিম উদ্দিন তাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি দিলে তিনি মামলা তুলে নেবেন। যদি তিনি আপসে না আসেন, তাহলে তাঁর কিছুই করার নেই। তিনি প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান, তাঁর সঙ্গে যে অন্যায় করা হয়েছে, তার বিচার চান। তিনি যদি বিচার না পান, তাহলে আত্মহত্যা করলে এর দায়ও জসিম উদ্দিনকে নিতে হবে।

নগর ছাত্রলীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন শুরু থেকেই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। তিনি বলেন, ‘ওই তরুণী আমার আত্মীয়। আমি সম্প্রতি বিবাহ করেছি। এরপর থেকে ওই তরুণী ষড়যন্ত্র করে আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে এবং আমাকে ফাঁসানোর জন্য এসব করছে।’

হুমকি দেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে জানার জন্য আজ শুক্রবার দুপুরে জসিম উদ্দিনের মুঠোফোনে কয়েকবার কল করলেও তিনি ফোন ধরেননি। এরপর খুদে বার্তা পাঠানো হলেও তিনি সাড়া দেননি।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন