বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ সময় পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘আমরা একসময় পরাধীন ছিলাম। পরাধীনতার গ্লানি, অপমান আমরা বুঝি। এটা নতুন প্রজন্ম বুঝবে না। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল মর্মবাণী ছিল বাঙালিত্ব প্রতিষ্ঠা। আমাদের বাঙাল বলে গালি দেওয়া হতো। কিন্তু আমরা এই শব্দ নিয়ে গর্ব করি। এটা গর্বের। আমরা এই চেতনা নিয়েই এগিয়ে যেতে চাই।’ মন্ত্রী শহীদ মিনারকে এ জাতি চেতনার প্রতীক উল্লেখ করে এটি নির্মাণে সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে এম এ মান্নান বলেন, ‘জীবনটাকে এনজয় করো। নিজের চোখ-কান খোলা রাখো। মানুষের সঙ্গে, প্রকৃতির সঙ্গে সময় কাটাও। মুক্ত আলো-বাতাসে ঘুরে বেড়াও।’

পরিকল্পনামন্ত্রী এর আগে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে জেলা পরিষদ আয়োজিত মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। এ অনুষ্ঠানে জেলার ১৫২ জন শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি নূরুল হুদা।

ওই অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বরাত দিয়ে বলেন, ‘তিনি (প্রধানমন্ত্রী) বিভিন্ন সভায় বলেন, আমরা শিক্ষায় এত এত অর্থ ব্যয় করছি, এত এত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করছি, কিন্তু কোনো গবেষণা নেই, আবিষ্কার নেই। পশ্চিমারা পারলে আমরা পারব না কেন, এই প্রশ্ন আমাদের নতুন প্রজন্ম যেন নিজেদের করে। আমরা শিক্ষিত জাতি চাই। এ জন্য সরকার যা যা দরকার করছে এবং করবে।’

default-image

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে এম এ মান্নান বলেন, ‘জীবনটাকে এনজয় করো। নিজের চোখ-কান খোলা রাখো। মানুষের সঙ্গে, প্রকৃতির সঙ্গে সময় কাটাও। মুক্ত আলো-বাতাসে ঘুরে বেড়াও। দুষ্টু লোকেরা এই এনজয় শব্দকে মন্দভাবে উপস্থাপন করে। এটাকে ইতিবাচক হিসেবে দেখতে হবে। কোনো কিছুই প্রশ্নের ঊর্ধ্বে নয়, এই ভাবনা মনে জাগ্রত রাখতে হবে।’

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ পরিমল কান্তি দে, প্রবীণ শিক্ষক যোগেশ্বর দাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রেজাউল করিম প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংস্কৃতিকর্মী দেওয়ান গিয়াস চৌধুরী।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন