সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ১০৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। তাঁদের মধ্যে ৪৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। এর মধ্যে আরটি–পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় ১৯ জন ও র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ৩০ জন রয়েছেন। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সদর উপজেলার ২৬ জন, শিবপুরের ৯, বেলাবের ৫, পলাশের ৫, রায়পুরার ৩ ও মনোহরদীর ১ জন রয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ পর্যন্ত জেলার ৬টি উপজেলা থেকে মোট ৩০ হাজার ৮৪৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ হাজার ৮১৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাঁদের মধ্যে সদর উপজেলার ২ হাজার ৯২৫ জনের, শিবপুরের ৪১৮, পলাশের ৭৪৩, মনোহরদীর ২৫৯, বেলাবের ২২০ ও রায়পুরার ২৫৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মোট ৬৪ জন। এর মধ্যে নরসিংদী সদরের ৩৩, পলাশের ৫, বেলাবের ৭, রায়পুরার ৮, মনোহরদীর ৪ ও শিবপুরের ৭ জন রয়েছেন।

সিভিল সার্জন মো. নূরুল ইসলাম জানান, ‘মাঝে আমরা একটু ভালোর দিকে থাকলেও সম্প্রতি বিপজ্জনক পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছি। এ ক্ষেত্রে আমাদের আরও একটু সতর্ক হতে হবে এবং সবাইকে টিকা নেওয়ার ব্যাপারে আগ্রহী হতে হবে।’