default-image

কক্সবাজারের টেকনাফে নাফ নদীতে মাছ ধরার সময় মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সদস্যরা নয়জন বাংলাদেশি জেলেসহ একটি মাছ ধরার নৌকা ধরে নিয়ে গেছেন। মঙ্গলবার বেলা তিনটার দিকে নাফ নদী ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় এ ঘটনা ঘটে।

ধরে নিয়ে যাওয়া জেলেরা হলেন মো. নুরুল আলম, মো. ইসমাইল হেসেন, মো. ইলিয়াছ, মো. ইউনুছ আলী (২৫), মোহাম্মদ কালা ওরফে কালাবদা, সাইফুল ইসলাম, সলিমুল্লা, মো. কামাল মিয়া (২০) ও মো. লালু মিয়া (৩০)।

বিজ্ঞাপন

টেকনাফের সাবরাং ইউপির ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মোহাম্মদ নুরুল আমিন ও নৌকার মালিক মোহাম্মদ আমিন প্রথম আলোকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নুরুল আমিন জানান, মঙ্গলবার ভোর চারটার দিকে নাফ নদী ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপ ঘোলাপাড়ার মোহাম্মদ আমিনের মালিকানাধীন একটি নৌকা নিয়ে আট জেলে মাছ ধরতে যান। মাছ ধরার সময় নৌকাটির ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়লে নাফ নদী ও সাগরের মোহনায় নৌকাটি ভাসতে থাকে। বেলা তিনটার দিকে বিজিপির সদস্যরা ভাসমান অবস্থায় আটজন জেলেসহ নৌকাটিকে অস্ত্রের মুখে মিয়ানমারের হাসসুরাতা সীমান্তচৌকিতে নিয়ে যান। বিষয়টি মুঠোফোনের মাধ্যমে নৌকার মালিক মোহাম্মদ আমিনকে জানিয়েছেন নৌকার মাঝি মোহাম্মদ কালা ওরফে কালাবদা।

জানতে চাইলে টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান প্রথম আলোকে বলেন, নৌকাসহ জেলেদের ফেরত চেয়ে বিজিপির ২ নম্বর ব্যাটালিয়নের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0