default-image

নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম মাসদাইরে ছয়তলার ফ্ল্যাটে সিলিন্ডারের গ্যাস জমে বিস্ফোরণে দগ্ধ আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাব্বির হোসেনের (১৫) মৃত্যু হয়।

সাব্বির হোসেন শহরের মাসদাইর এলাকার মো. তামিমের ছেলে। এ নিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনায় সাব্বিরের মামা মো. মিশাল (২৬), মিশালের দেড় বছরের শিশু মিনহাজ, চাচাতো শ্যালক মাহফুজসহ (১৩) মোট চারজনের মৃত্যু হলো।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন নিহত মিশালের স্ত্রী মিতা আক্তার (২৩) ও তাঁর মেয়ে আফসানা আক্তার (৪)।

বিজ্ঞাপন

মিশালের শ্বশুর শহীদ হোসেন প্রথম আলোকে জানান, ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাব্বির মারা গেছেন। সাব্বিরের শরীরের অধিকাংশ পুড়ে গিয়েছিল। তিনি আরও বলেন, মুঠোফোনে মেয়ে মিতার সঙ্গে কথা বলেছি, মেয়ে তাঁকে জানিয়েছে, তাঁর শরীরে অনেক জ্বালাপোড়া হচ্ছে। নাতনি আফসানার অবস্থাও ভালো না।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া প্রথম আলোকে বলেন, দগ্ধ সাব্বির চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। অন্যদের অবস্থা ভালো না।

উল্লেখ্য, গত সোমবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে শহরের পশ্চিম মাসদাইর এলাকায় হাজী ভিলার ছয়তলার ফ্ল্যাটে বিকট শব্দে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে একই পরিবারের ছয়জন দগ্ধ হন। বিস্ফোরণে ওই ঘরের দরজা-জানালার কাচ ভেঙে গেছে এবং ঘরের আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন মালামাল পুড়ে যায়। দগ্ধ ব্যক্তিদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন