সূত্র আরও জানায়, পৌনে তিন কিলোমিটার সড়কের মধ্যে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লালবাগ পর্যন্ত আধা কিলোমিটার সড়কের ফুটপাতের কাজ শেষ। কিন্তু প্রায় ১০০টি ঢাকনা এখনো বসানো হয়নি। ফলে এই ফুটপাত দিয়ে কেউ চলাচল করতে পারছে না।

গতকাল রোববার সকালে দেখা যায়, নালার ঢাকনা না থাকায় ফুটপাত দিয়ে চলাচল খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। ২০ ফুট পরপর নালার ঢাকনাগুলো উন্মুক্ত। চলাচল করতে গিয়ে যেকোনো সময় নালার ভেতর পড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ এলাকায় শত শত আবাসিক মেস। এই পথে কারমাইকেল কলেজ ও বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা চলাচল করেন।

কারমাইকেল কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী রমজান আলী বলেন, ‘ফুটপাত হলো, কিন্তু চলাচল করতে পারছি না। বাধ্য হয়ে রাস্তার এক পাশ দিয়ে হেঁটে যেতে হয়।’

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইমতিয়াজ আহমেদ নামের একজন শিক্ষার্থী বলেন, ফুটপাতে বড় বড় নর্দমা, কিন্তু ঢাকনা নেই। দেখতেই ভয় লাগে। ফুটপাত দিয়ে হাঁটাচলার করতে গিয়ে যেকোনো সময় পড়ে যাওয়ার ভয় আছে।

ঠিকাদার আলমগীর জাহান বলেন, ‘আমরা তো নালা উন্মুক্ত রাখতে চাইনি। ঢাকনা বসানো হলেও এক রাতেই ২০টি ঢাকনা চুরি হওয়ায় ওই ঢাকনা বসানো বন্ধ রাখা হয়েছে। সিটি করপোরেশনকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।’

সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী আজম আলী বলেন, ঠিকাদার কাজ ঠিকই করেছেন। ২০টি ঢাকনা বসানোর রাতেই সব কটি চুরি হয়ে যায়। তাই ঢাকনা বসানোর কাজ বন্ধ রয়েছে। এরপরও নতুন করে নালার ওপর ঢাকনা বসানো হবে খুব শিগগির।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন