default-image

সুনামগঞ্জের হাওরে নির্ধারিত সময়ের ১০ দিন পরও ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণের কাজ শেষ না হওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে জেলার তাহিরপুর উপজেলার সদর বাজারে এই মানববন্ধন করেন স্থানীয় ‘হাওর বাঁচাও আন্দোলন’ সংগঠনের সদস্যরা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, হাওরে ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণকাজের সময়সীমা শেষ হয়েছে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি। কিন্তু এখনো জেলার অনেক হাওরে বাঁধের কাজ শেষ হয়নি। কাজে গাফিলতি ও ধীরগতির কারণে হাওরের ফসল নিয়ে কৃষকেরা চিন্তায় আছেন। কাজে প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের তদারকির অভাব রয়েছে। যে কারণে কাজে গাফিলতি করছে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির (পিআইসি) লোকজন। বক্তারা আরও বলেন, বাঁধের কাজে শুরু থেকেই নানা অনিয়ম হচ্ছে। সময়মতো প্রকল্প নির্ধারণ ও পিআইসি গঠন হয়নি। যে কারণে কাজে বিলম্ব হয়। এখন বৃষ্টি শুরু হবে। বৃষ্টির মধ্যে বাঁধে মাটি ফেললে বাঁধ দুর্বল হয়। আর দুর্বল বাঁধে হাওরের ফসল রক্ষা হবে না। যারা কাজে গাফিলতি ও অনিয়ম করছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানানো হয় মানববন্ধন থেকে।

বিজ্ঞাপন

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন আয়োজক সংগঠনের উপজেলা শাখার জ্যেষ্ঠ যুগ্ম আহ্বায়ক সাইদুল কিবরিয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক মোসায়েল আহমদ, সদস্যসচিব হোসাইন শরিফ, সংগঠনের সদস্য তোজাম্মেলন হক, আলী আহমদ, আজহারুল ইসলাম, আকরাম হোসেন, নুর মিয়া, মিজানুর রহমান, মারুফ আহমদ, কৃষক আবদুল মন্নাছ প্রমুখ।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্য অনুযায়ী, সুনামগঞ্জে এবার ১১টি উপজেলার বিভিন্ন হাওরে ৮১১টি প্রকল্পে ফসল রক্ষা বাঁধের কাজ হচ্ছে। এবার কাজে বরাদ্দ ধরা হয়েছে ১৩৩ কোটি টাকা। একটি প্রকল্পে একটি পিআইসি কাজ করে। এখন পর্যন্ত কাজের অগ্রগতি গড়ে ৮২ শতাংশ।

সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সবিবুর রহমান বলেছেন, ‘আমরা সব পিআইসিকে ১৫ মার্চের মধ্যে কাজ শেষ করতে বলেছি। যেসব উপজেলার কাজে অগ্রগতি কম, সেখানে তদারকি বাড়ানো হয়েছে। কাজে কেউ গাফিলতি বা অবহেলা করলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন