নেত্রকোনা জেলার মানচিত্র

নেত্রকোনার খালিয়াজুরিতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত হওয়ার তিন সপ্তাহ পর শৈলেন ভৌমিক (৫৮) নামের এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার বিকেলে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান তিনি। শৈলেন ভৌমিক দাউদপুর গ্রামের মৃত হরগোবিন্দ ভৌমিকের ছেলে।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও থানা-পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ২৭ ডিসেম্বর পঞ্চম ধাপে খালিয়াজুরি উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের মধ্যে চারটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে চাকুয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পদে দাউদপুর গ্রামের অজিত মহলানবীশ জয়ী হন। পরাজিত হন একই গ্রামের যতীন্দ্র মহলানবীশ।

পরদিন দুপুরে যতীন্দ্র ও অজিতের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে অজিতের সমর্থক শৈলেন ভৌমিক, বিপ্লব, অনিক, অপুসহ কয়েকজন গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে খালিয়াজুরি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে শৈলেন ভৌমিককে নেত্রকোনা থেকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রায় এক সপ্তাহ হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার পর তিনি বাড়ি ফিরে যান। আজ সোমবার বিকেলে অবস্থার অবনতি হলে তিনি মারা যান। খবর পেয়ে স্থানীয় থানা–পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে খালিয়াজুরি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শৈলেনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। সংঘর্ষের পর অজিত মহলানবীশ বাদী হয়ে ২৫ জনকে আসামি করে থানায় একটি মামলা করেছিলেন। ময়নাতদন্তে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হলে ওই মামলাটিই হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হবে। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।