বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চলতি পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী একাধিক নেতা দলীয় ফরম সংগ্রহ করেন। প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনের পত্নী সৈয়দ মোনালিসা ইসলামসহ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ইব্রাহীম শাহিন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক আরিফুল এনাম, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ইমতিয়াজ বিন হারুন, সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল আবেদীনের স্ত্রী তহমিনা খাতুন, পুত্র তানভীর আহমেদ, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সাজ্জাদুল আনাম, জেলা যুবলীগের সদস্য সোয়েব রহমান, মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফুয়ান রুপক ও মেহেরপুর বড় বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।

শুক্রবার বিকেল পাঁচটায় গণভবনে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে দলের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মেয়র পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী ১১ জনের মধ্য থেকে মাহফুজুর রহমানকে মনোনীত করা হয়।

জানতে চাইলে মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘মেহেরপুর পৌর শহরকে গত পাঁচ বছরে ঢেলে সাজানো হয়েছে। প্রতিটি সড়ক এখন পাকা। একটি শক্তিশালী নেতাকে টেক্কা দিয়ে রাজনীতির মাঠে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করে রাখা হয়েছে। সব দিক বিবেচনা করে সভানেত্রী আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। এতে পৌরবাসীর আকাঙ্ক্ষার বাস্তবায়ন হলো।’

জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম রসুল বলেন, মেহেরপুরে বিবদমান রাজনীতিতে মাহফুজুর রহমানকে দলীয় প্রতীক দেওয়ায় দলছুট নেতা–কর্মীরা আবারও সক্রিয় হবে। এই মনোনয়ন প্রভাব খাটিয়ে ধীরে ধীরে আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা–কর্মীদের দল থেকে বের করে দেওয়ার ষড়যন্ত্র রুখতে সাহায্য করবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন