পুলিশ জানায়, গতকাল শুক্রবার রাতে শামিম এক নারীকে স্ত্রী পরিচয়ে ওই আবাসিক হোটেলের ৩০৭ নম্বর কক্ষে ওঠেন। সকালে স্ত্রী পরিচয়দানকারী নারী (২৬) শামিমের মৃত্যুর খবর হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানালে তাঁরা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গলায় রশি দিয়ে ফাঁস দেওয়া শামিমের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

শামিমের কথিত স্ত্রীর দাবি, রাতে তাঁকে ঘুমের ওষুধ খাওয়ানোর পরে শামিম আত্মহত্যা করেছেন। তবে শামিমের বাবা আবদুর রাজ্জাক ছেলের লাশ শনাক্ত করে বলেন, তাঁর ছেলে অবিবাহিত। তাঁকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, লাশ উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। শামিমের মৃত্যুর কারণ উদ্‌ঘাটনে কথিত স্ত্রী ও হোটেল ম্যানেজারকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন