বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় লোকজন ও নিহত ব্যক্তির স্বজনেরা জানান, গতকাল রাতে ধন মিয়া নিজ গ্রামের লিটন মিয়ার দোকানে খেজুর বিক্রির পাওনা টাকা আনতে যান। এ সময় দোকানে লিটনকে না পেয়ে তাঁর ভাই হারুন মিয়া ও দোকানের কর্মচারী মাইন উদ্দিনের সঙ্গে তাঁর কথা–কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে হারুন মিয়া উত্তেজিত হয়ে ধন মিয়াকে চড়থাপ্পড় মারতে শুরু করেন। এতে ধন মিয়া ঘটনাস্থলেই অচেতন হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি দ্রুত তাঁকে উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে সেখানকার জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাঁশগাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. ইউসুফ আলী জানান, চড় দেওয়ার পর ওই ব্যক্তি খুব সম্ভবত হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন