বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, খবর পেয়ে বিকেলেই পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। রাতে শিশুটির বাবা মামলা করেছেন। আজ শিশুটির জবানবন্দি গ্রহণের জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত ব্যক্তি পলাতক। তাঁকে ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।

জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের প্রবশেন কর্মকর্তা পল্লব ইবনে শায়েখ বলেন, দুপুরে শিশুটি জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালত-৩–এ জবানবন্দি দিয়েছে। তাঁরা শিশুটির খোঁজখবর রাখছেন। তার সুরক্ষা ও আইনি সহায়তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

অভিযুক্ত আবদুল কাদের সাতবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান এস এম সামসুল আলমের ভগ্নিপতি। যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেম, ‘অভিযুক্ত ব্যক্তি আমার নিকটাত্মীয় এটা ঠিক। তবে তাঁর সঙ্গে আমার এবং আমার পরিবারের কোনো যোগাযোগ নেই। তিনি অপরাধ করে থাকলে অবশ্যই আমিও তাঁর শাস্তি দাবি করি।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন