default-image

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেছেন, পারকি সৈকতকে ঘিরে হাতে নেওয়া উন্নয়ন প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে এখানকার দৃশ্য বদলে যাবে এবং এলাকাটি সমৃদ্ধ হবে। এ সৈকতে দেশি–বিদেশি পর্যটকেরা বেড়াতে আসবেন। ফলে অর্থনৈতিক পরিবর্তন আসবে।

বুধবার বিকেল পাঁচটার সময় চট্টগ্রামের আনোয়ারার পারকি সৈকতে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের একটি উন্নয়ন প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

পারকি সৈকতসংলগ্ন এলাকায় ১৩ দশমিক ৩৩ একর জায়গায় ৭৯ কোটি টাকা খরচ করে একটি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে পর্যটন করপোরেশন। এ প্রকল্পের অধীনে একটি ৪ তলা ভবন, ১০টি কটেজ, ৪টি ডুপ্লেক্স কটেজ, রেস্তোরাঁসহ বিভিন্ন স্থাপনা আছে। বর্তমানে ৩১ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে প্রকল্পের। ২০২২ সালের জুনে পুরো প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন এগিয়ে যাচ্ছে তাঁরই কন্যা শেখ হাসিনার হাত ধরে। সৌন্দর্যের লীলাভূমি এ বাংলাদেশ সোনার বাংলায় রূপ নিচ্ছে এ সরকারের উন্নয়নমুখী নানা কর্মকাণ্ডের কারণে।

বুধবার প্রকল্প এলাকা পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন, পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান মো. হান্নান মিয়া, আনোয়ারার ইউএনও শেখ জোবায়ের আহমেদ, স্থানীয় বারশত ইউপি চেয়ারম্যান এম এ কাইয়ুম শাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী পরে পারকি সৈকত ঘুরে দেখে সেখানে আটকে পড়া জাহাজ ক্রিস্টাল গোল্ডকে সরানো নিয়ে আন্তমন্ত্রণালয়ের সভায় কথা বলার আশ্বাস দেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন