default-image

ফেনীতে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমিতের সংখ্যা দুই হাজার ছাড়াল। আজ বুধবার জেলায় আসা নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে সাতজনের করোনা পজিটিভ এসেছে। এর মধ্য দিয়ে জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ছয়।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্র জানায়, জেলায় আজ নোয়াখালী আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ ল্যাবে ৪০ জনের নমুনা পরীক্ষার ফল এসেছে। এর মধ্যে ৭ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত জেলার মোট ১১ হাজার ৬৪৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে এই ল্যাবে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। এর মধ্যে ১১ হাজার ৪২৮ জনের নমুনা পরীক্ষা শেষে ২ হাজার ৬ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ইতিমধ্যে ১ হাজার ৭৫২ জন সুস্থ হয়েছেন। করোনায় এ পর্যন্ত ফেনীর সিভিল সার্জনসহ মারা গেছেন ৪২ জন।

বর্তমানে জেলার ২৫৪ জন করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি স্বাস্থ্য বিভাগের পরামর্শ নিয়ে তাঁদের নিজ বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। বর্তমানে হাসপাতালে কোনো করোনা রোগী ভর্তি নেই।

বিজ্ঞাপন

মোট আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ফেনী সদর উপজেলায় আক্রান্ত ৭৮৯ জন, সুস্থ ৬৮৯ জন এবং মারা গেছেন ১৪ জন। দাগনভূঞা উপজেলায় আক্রান্ত ৪০০ জন, সুস্থ ৩৪৭ জন এবং মারা গেছেন ৮ জন। ফুলগাজী উপজেলায় আক্রান্ত ১২৭ জন ও সুস্থ ১১৫ জন। ছাগলনাইয়া উপজেলায় আক্রান্ত ২৫০ জন, সুস্থ ২৩২ জন এবং মারা গেছেন ৬ জন। সোনাগাজী উপজেলায় আক্রান্ত ২৬৯ জন, সুস্থ ২৪৩ জন এবং মারা গেছেন ১১ জন। পরশুরাম উপজেলায় আক্রান্ত ১৪৫ জন, সুস্থ ১২২ জন এবং মারা গেছেন ৩ জন। জেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করা পজিটিভ শনাক্ত রোগীদের মধ্যে ফেনী সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা অন্য জেলারও ২৬ জন রয়েছেন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন চারজন।

ফেনীতে গত ১৬ এপ্রিল ছাগলনাইয়া উপজেলার পশ্চিম মধুগ্রামের এক যুবক প্রথম করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি ঢাকার মোহাম্মদপুরে একটি মুঠোফোন প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন।

মন্তব্য পড়ুন 0