থানা–পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বেলাল হোসেন মোটরসাইকেলে করে ভাড়ার বিনিময়ে মানুষজনকে গন্তব্যে পৌঁছে দেন। বাসচালক ফজর আলী বাড়ি ফেরার জন্য বেলাল হোসেনের মোটরসাইকেলে উঠেছিলেন। পথে কোনো যানবাহনের চাপায় দুজনের মৃত্যু হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। আজ ভোর রাতে ফজরের নামাজ শেষে মুসল্লিরা বাড়ি ফেরার পথে ভবানীপুরের জামনগর এলাকায় নিহত দুজনের লাশ সড়কের ওপর পড়ে থাকতে দেখেন।

শেরপুর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সংবাদ পেয়ে আজ সকাল আটটায় দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত দুজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আইনগত প্রক্রিয়া শেষে উভয় পরিবারের লাশ তাঁদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় কোন গাড়ির চাপায় হয়েছে, তা নিয়ে অনুসন্ধান চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন