default-image

বগুড়ায় করোনার সংক্রমণে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া করোনার উপসর্গ জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে আরও দুজন মারা গেছেন। গতকাল রোববার বেলা তিনটা থেকে আজ সোমবার ভোর পর্যন্ত বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তাঁদের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে জেলায় নতুন করে ১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মুখপাত্র জাহাঙ্গীর আলম।

করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়ে মারা যাওয়া তিনজনের মধ্যে একজন হলেন গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার কালপানি গ্রামের নজরুল ইসলাম (৬৭)। তিনি ২০ নভেম্বর থেকে হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন। তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে  মেডিকেল কলেজের আরটিপিসিআর ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হলে তিনি কোভিড পজিটিভ শনাক্ত হন। সোমবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

কোভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়ে মারা যাওয়া অপর দুজন হলেন বগুড়ার শেরপুর উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের আলাউদ্দিন সরকার (৭৮) ও দেবু গ্রামের প্রয়াত হাফিজার রহমানের স্ত্রী মালেকা বেগম (৭৫)। দুজনই ২৬ নভেম্বর থেকে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। এর মধ্যে আলাউদ্দিন সরকার রোববার রাত আটটায় এবং মালেকা বেগম দিবাগত রাত সাড়ে তিনটায় মারা যান।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে জ্বর, শ্বাসকষ্টসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে ২৬ নভেম্বর করোনা ইউনিটে ভর্তি হন সিরাজগঞ্জের মুজিব সড়কের বাসিন্দা প্রকাশ বল্লভ (৭০)। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে তিনি মারা যান।

এ ছাড়া করোনার উপসর্গ নিয়ে রোববার বেলা তিনটার দিকে করোনা ইউনিটে মারা যান জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার বিনইল গ্রামের আবুল হোসেন (৫২)। তিনি ২৫ নভেম্বর থেকে করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন।

জেলা সিভিল সার্জন সূত্রে জানা যায়, বগুড়ায় ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট কোভিড রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৮১৬ এবং মৃত্যুর সংখ্যা ২১১ জন।

মন্তব্য করুন