বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

জিলা স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষার্থী, চিকিৎসক ও মুক্তিযোদ্ধা আরশাদ সায়ীদ বলেন, নতুন প্রজন্মের অনেকের কাছে বগুড়ায় জিলা স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগ ও অবদানের কথা অজানা। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে সবচেয়ে বড় পতাকা প্রদর্শনের মাধ্যমে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের অবদানের কাহিনি জানার পাশাপাশি জিলা স্কুলের সুনাম ও গৌরব আরও বেশি ছড়িয়ে পড়বে।

বগুড়া জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক শ্যামপদ মুস্তফী বলেন, বিশাল পতাকা প্রদর্শন প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের এক অনন্য উদ্যোগ। এর মাধ্যমে জিলা স্কুলের সুনাম আরও বেশি ছড়িয়ে পড়বে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন