default-image

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলায় পেঁয়াজখেত থেকে নাজমুল হাসান (২৭) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নাজমুলের বন্ধু মো. শাকিলকে (২৮) জিজ্ঞাসাবাদ করে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার শশদিয়া গ্রামের পাশে অবস্থিত কাটিয়াদহ বিল এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করে।

নাজমুল ও শাকিলের বাড়ি সাঁথিয়া পৌরসভার শশদিয়া গ্রামে। তাঁরা একে অপরের প্রতিবেশী ও ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে।

সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম বলেন, পাওনা টাকা নিয়ে নাজমুল ও শাকিলের মধ্যে বিরোধ ছিল। এ নিয়ে দুজনের ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে শাকিল লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে নাজমুলকে হত্যা করেন বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে। তবে এ ঘটনায় শাকিলের সঙ্গে কোনো সহযোগী ছিল কি না, সে ব্যাপারে জানার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে ওসি জানান।

সাঁথিয়া থানা–পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল সোমবার রাত ৮টার দিকে কেউ একজন নাজমুলকে মুঠোফোনে বাইরে ডেক নেন। এরপর তিনি বাড়ি ফিরে ২৮ হাজার টাকা সঙ্গে নিয়ে বের হন। রাতে আর ফিরে আসেননি।

খোঁজাখুঁজির পরও নাজমুলকে না পেয়ে মঙ্গলবার দুপুরে পরিবারের লোকজন সাঁথিয়া থানা–পুলিশকে নিখোঁজের বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে পুলিশ এ ব্যাপারে খোঁজখবর নিতে থাকে। একপর্যায়ে সন্দেহজনক মনে হওয়ায় পুলিশ নাজমুলের বন্ধু শাকিলকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকে। এতে শাকিলের স্বীকারোক্তি ও তথ্যানুযায়ী পুলিশ শশদিয়া গ্রামের পাশে অবস্থিত কাটিয়াদহ বিলের একটি পেঁয়াজখেত থেকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে নাজমুলের লাশ উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন