প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য সাদেকুল আরেফিন বলেন, ‘গণিতের ভয়কে জয় করাই হলো এ অলিম্পিয়াড আয়োজনের মুখ্য উদ্দেশ্য। গণিত মানুষকে যুক্তিবাদী করে, জ্ঞানবিজ্ঞানকে এগিয়ে নেয় এবং মেধা ও মননের বিকাশে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। কিন্তু আমাদের দেশের শিক্ষার্থীদের মধ্যে গণিত নিয়ে এক অজানা ভীতি রয়েছে। এ জন্য গণিতের এ উৎসব আয়োজন করে শিক্ষার্থীদের মধ্যে গণিতের অস্তাচল ভাঙতে উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।’

উপাচার্য বলেন, ‘গণিতের চর্চা ছাড়া একটি প্রজন্ম মেধাবী হতে পারে না। একটি মেধাবী প্রজন্মই পারে একটি দেশ ও জাতিকে এগিয়ে নিতে। এ জন্য আমাদের শিক্ষার্থীদের বেশি বেশি গণিত চর্চা করতে হবে। আনন্দের সঙ্গে সেটা করতে পারলেই গণিত ভীতি নয়, আনন্দের বিষয় হয়ে উঠবে। এর মধ্য দিয়েই আগামীর নেতৃত্ব গড়ে উঠবে। জ্ঞান-বিজ্ঞান, উদ্ভাবন ও প্রযুক্তি এবং নেতৃত্বে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ। আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন, সেই সমৃদ্ধ সোনার বাংলা বিনির্মাণে মেধাবী প্রজন্ম ও নেতৃত্বের বিকল্প নেই।

১২তম স্নাতক গণিত অলিম্পিয়াড ২০২১ বরিশাল অঞ্চলের আহ্বায়ক বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান চিন্ময়ী পোদ্দারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের অধ্যক্ষ মো. রুহুল আমিন, ১২তম স্নাতক গণিত অলিম্পিয়াড-২০২১ বরিশাল অঞ্চলের সদস্যসচিব গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন, বরিশাল অঞ্চলের ট্রেজারার ও সহকারী অধ্যাপক বিজন কৃষ্ণ সাহা, সহকারী অধ্যাপক শফিউল আলম প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন