default-image

সরকারি দায়িত্ব পালন না করা, জাতীয় দিবসগুলোতে অংশগ্রহণ না করা ও এডিপির অর্থ ব্যয়ে অনিয়ম করাসহ নানা অভিযোগে নাটোরের বাগাতিপাড়া পৌরসভার মেয়র মোশাররফ হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পৌরসভা থাকা না–থাকা নিয়ে উচ্চ আদালতে মামলা ঝুলে থাকায় নির্বাচন না করেও তিনি টানা ১৬ বছর একই পদে বহাল ছিলেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগ ২১ জানুয়ারি মোশাররফ হোসেনকে বরখাস্তের প্রজ্ঞাপন জারি করলেও গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট মেয়রের নজরে আসে। মোশাররফ হোসেন বাগাতিপাড়া উপজেলা বিএনপির আহ্বায়কও।

নাটোর জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগ সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের (পৌর শাখা-২) উপসচিব ফারজানা মান্নান স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে মেয়র মোশাররফ হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছেন। বরখাস্তের কারণ হিসেবে ওই প্রজ্ঞাপনে সরকারি দায়িত্ব পালন না করা, জাতীয় দিবসগুলোতে অংশগ্রহণ না করা ও এডিপির অর্থ ব্যয়ে অনিয়ম করাসহ নানা অভিযোগের কথা বলা হয়েছে। তবে কোন খাতের কী পরিমাণ অর্থ ব্যয়ে অনিয়ম করা হয়েছে, তা উল্লেখ করা হয়নি। বরখাস্তের অফিস আদেশ জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট মেয়র বরাবর পাঠানো হয়। ২১ জানুয়ারি উপসচিব প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করলেও তা গতকাল নাটোরের মানুষের নজরে আসে।

বিজ্ঞাপন

মেয়র মোশাররফ হোসেন তাঁকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তাঁকে অন্যায়ভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি এ ব্যাপারে আইনের আশ্রয় নেবেন।

নাটোর জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক গোলাম রাব্বী বাগাতিপাড়ার মেয়রকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কাগজপত্র না দেখে বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না।

২০০৪ সালে বাগাতিপাড়া পৌরসভা প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর ওই বছরের ২৬ জুলাই মোশাররফ হোসেন প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ২০০৬ সালের নির্বাচনে তিনি প্রথম চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন। ২০০৬ সালে চেয়ারম্যান পদটি মেয়র হিসেবে পরিবর্তিত হয়। পরে স্থানীয় সাংসদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার বাগাতিপাড়া পৌরসভা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে। ওই প্রজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে মামলা হওয়ায় আর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। ফলে তিনি টানা ১৬ বছর ধরে পৌরসভার শীর্ষ পদে আসীন আছেন। ২১ জানুয়ারি তাঁকে সরকার সাময়িক বহিষ্কার করে প্রজ্ঞাপন জারি করে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন