এ বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, উভয়কে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, এক বছর ধরে ওই নারী যশোর থেকে রাজশাহী যাতায়াত করেন। পরিবহনশ্রমিক মনির হোসেনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একাধিকবার তাঁদের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে ওই নারী যশোর শহরের মনিহার এলাকায় পৌঁছান। এ সময় মাগুরায় (ওই নারীর বাড়ি) যাওয়ার কোনো বাস ছিল না। তখন ওই নারী মনিরের কাছে রাতে থাকার আশ্রয় চান। মনির কৌশলে ওই নারীকে একটি বাসের মধ্যে নিয়ে রাখেন। পরে রাতে তিনি তাঁকে ধর্ষণ করেন।

ওই নারীর বরাত দিয়ে ওসি আরও জানান, মনির হোসেন তাঁকে (নারীকে) ধর্ষণ করেছেন। এ ঘটনায় স্থানীয় দুজন তাঁকে মারধর করেছেন। ওই দুজনকে দেখলে তিনি চিনতে পারবেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন