default-image

ভাড়া দিতে না পারায় বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে বাক্‌প্রতিবন্ধী এক নারী যাত্রীকে রাস্তায় ফেলে দেওয়া হয়েছে। গতকাল রোববার কেরানীগঞ্জের রোহিতপুর বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটির একটি ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, গতকাল সকাল পৌনে নয়টার দিকে এন মল্লিক নামের একটি বাস থেকে ছুড়ে ফেলা হয় বোরকা পরা ওই নারীকে। মাটিতে পড়ে তিনি অস্ফুট স্বরে গোঙাচ্ছিলেন। পরে স্থানীয় লোকজন গিয়ে তাঁকে মাটি থেকে তোলেন। ভিডিও চিত্রেই দেখা যায়, গাড়ির নম্বর ঢাকা মেট্রো ব-১৩-১৫২১। এন মল্লিক বাসটি গুলিস্তান-নবাবগঞ্জ রুটে চলাচল করে।

বিজ্ঞাপন

মাটিতে ছুড়ে ফেলে দেওয়া ওই নারী বাক্‌প্রতিবন্ধী ছিলেন, তা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি সূত্র প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছে। সূত্রটি বলেছে, নারীকে ছুড়ে ফেলে দেওয়া বাসের চালকের সহকারীর নাম হাসান (২২)। তাঁর বাড়ি নবাবগঞ্জের জয়কৃষ্ণ এলাকায়। চালক ছিলেন সবুজ মিয়া (৪০) নামের এক ব্যক্তি।

default-image

ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজনকে ওই নারী তাঁকে বাস থেকে ছুড়ে ফেলে দেওয়ার কারণ লিখে জানিয়েছেন। টাইলসের ওপর তাঁর সেসব লেখার একটি স্থিরচিত্র প্রথম আলো সংগ্রহ করেছে। সেখানে ওই নারী লিখেছেন, ‘এন মল্লিক কোনাখোলা থেকে উঠাইসে। ভাড়া নাই। এন মল্লিক কোনো দিনও আমার থেকে ভাড়া নেয় না। এরা ভাড়া চায়। দিতে না পারায় এমুন ব্যবহার। এন মল্লিকের সবাই আমাকে চেনে। ও মনে হয় চিনে নাই। তাই বুজাবার চেষ্টা করসিলাম।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন