বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পিডিবি সিলেট বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-৫-এর নির্বাহী প্রকৌশলী অনিক সরকার বলেন, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ১১ হাজার ভোল্টের সঞ্চালন লাইনের বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু রেখে সংস্কারকাজ শুরু করেছিল। এতে ওই শ্রমিক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের নিয়ম ছিল, বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে মেরামতকাজ করা। তাঁরা মেরামত শুরু করার জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করার ব্যাপারে কিছু জানায়নি। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরাণ (রহ.) থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আনিসুর রহমান বলেন, ‘বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক বিদ্যুৎ-শ্রমিকের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। মরদেহ সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন