বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সপ্তম ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবা পৌরসভাসহ ১০টি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। রোববার মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী গোলাম হাক্কানী ছাড়া আর কোনো প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেননি।

এ ছাড়া সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে দুজন, ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে পাঁচজন এবং ৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে দুজন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৬ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাসিদুল ইসলাম বলেন, রোববার মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী গোলাম হাক্কানী ছাড়া অন্য কোনো প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল না করায় তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন।

এদিকে শনিবার সন্ধ্যায় কসবা সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে এলাকাবাসীর সঙ্গে মতবিনিময় সভায় বর্তমান মেয়র এমরান উদ্দিন ওরফে জুয়েল আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী গোলাম হাক্কানীকে সমর্থন দেন। মতবিনিময় সভাটি জনসমাবেশে পরিণত হয়।

এমরান উদ্দিন তাঁর বক্তৃতায় কর্মী–সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, ‘নৌকা আমাকে জুয়েল বানিয়েছে। নৌকার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্পর্ক। নৌকার সঙ্গে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সম্পর্ক। আমি নৌকার সঙ্গে বেইমানি করব না। নৌকার প্রার্থী যদি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত না হন, তাহলে আপনারা ২ নভেম্বর কেন্দ্রে গিয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট দেবেন।’

মেয়র এমরান উদ্দিন বলেন, ‘স্থানীয় সংসদ সদস্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হক আমাকে মেয়র বানিয়েছেন। এখন তিনি যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, সেটা মাথা পেতে মেনে নিয়েছি। কোনো পদ–পদবি আমার না থাকলেও আমি আগের মতোই জনগণের পাশে থাকব।’

আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্রে জানা গেছে, মেয়র পদে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন কসবা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক গোলাম হাক্কানী। কসবা পৌরসভার বর্তমান মেয়র এমরান উদ্দিন গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত হয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন।

এ ছাড়া মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন কসবা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এম এ আজিজ, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. ফজলুর রহমান, বাংলাদেশ শ্রমিক লীগ কসবা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন, আওয়ামী লীগ কর্মী মো. মাহবুবুর রহমান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন