default-image

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দরের আন্তর্জাতিক অভিবাসনচৌকি (আইসিপি) দিয়ে ভারতফেরত ৪১ বাংলাদেশিকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এ সময় ভারতে ফেরত গেছেন ২৩ জন।

পাটগ্রাম উপজেলা প্রশাসন ও বুড়িমারী অভিবাসন পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২৬ এপ্রিল থেকে এই স্থলবন্দর দিয়ে পাসপোর্টে যাত্রী পারাপার সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয় ১৪ দিনের জন্য। তবে শর্ত সাপেক্ষে প্রথম দিনে ছয়জন দেশে ফেরেন। এরপর ভারতে বাংলাদেশ দূতাবাসের অনুমতি নিয়ে পর্যায়ক্রমে আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত ৪১ জন দেশে ফিরেছেন। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী, ভিসার মেয়াদ ১৫ দিনের কম থাকা যাত্রীরা দেশে ফিরতে পারবেন। বুড়িমারী স্থলবন্দরের পুলিশ অভিবাসন কেন্দ্রের ভাষ্যমতে, ভারতের কলকাতায় বাংলাদেশি ও হাইকমিশনার কার্যালয় থেকে এনওসিসহ করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে এ অভিবাসন কেন্দ্র দিয়ে বাংলাদেশ ও একইভাবে ভারত, ভুটান, নেপালের পাসপোর্টধারী যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন, এমন নির্দেশনা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পাটগ্রাম উপজেলা প্রশাসন সূত্রের ভাষ্যমতে, ২৬ এপ্রিল উপজেলা প্রশাসনের এক জরুরি সভায় ভারত থেকে ফিরে আসা বাংলাদেশি যাত্রীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখার বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এরপর থেকে ভারত থেকে আসা বাংলাদেশি নাগরিকদের ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হচ্ছে ৩টি হোটেলে। তবে এ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে সম্পূর্ণ নিজ খরচে থাকতে হবে। আর তা দেখভাল করবে স্থানীয় উপজেলা ও থানা প্রশাসন। এ পর্যন্ত তাঁদের সংখ্যা দাঁড়াল ৪১। এ সময় ভারতে ফেরত গেছেন ২৩ ব্যক্তি। এর মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমতিক্রমে চিকিৎসা ভিসা নিয়ে গাইবান্ধা জেলার মোফাখারুল ইসলামের (৫০) দুটি কিডনি নষ্ট হওয়ায় তিনি চিকিৎসার জন্য ভারতে যান। চিকিৎসা শেষে তাঁরা ফেরত আসেন। আসার পরই গুরুতর অসুস্থ হন। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের অনুমতি দিয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্বামী ও স্ত্রীকে চিকিৎসার জন্য পাঠান এবং সেখানে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।

বুড়িমারী স্থলবন্দর পুলিশ অভিবাসন কেন্দ্রে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ভারত থেকে ফিরে আসা ওই ৩৯ ব্যক্তিকে বুড়িমারী স্থলবন্দর এলাকায় বেসরকারি আবাসিক হোটেল এভরি ডে, স্বাক্ষর প্লাজা ও সামটাইমস হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে এবং তাঁদের খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সাইফুর রহমান বলেন, জেলা প্রশাসনের নির্দেশনায় বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে ফেরত আসা বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীদের বুড়িমারীর তিনটি আবাসিক হোটেলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন