বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক দিন আগে উপজেলার সাদেকপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য জয়নাল আবেদীনের ছোট ভাই মোসলেম উদ্দিন এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। একই ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য আবদুল আলী ওই পোস্টটি দেখেন। ১ সেপ্টেম্বর আবদুল আলীর লোকজন মোসলেম উদ্দিনকে মারধর করেন। মারধরের বিষয়টি স্থানীয় ব্যক্তিরা মীমাংসার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। এ ঘটনার জেরে বুধবার বেলা দেড়টার দিকে উভয় পক্ষের লোকজন দেশি অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ৫ জন আহত হয়েছেন।

এ বিষয়ে জানার জন্য মুঠোফোনে কল করে ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন ও সাবেক ইউপি সদস্য আবদুল আলীর সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাজী ইবনে আনোয়ার বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন