বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গতকাল রোববার ওই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ঘোষিত নির্বাচনী ফলাফল অনুযায়ী, শহিদুল হক আনারস প্রতীক নিয়ে ৪ হাজার ৬৫৩ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তাঁর বড় দুই ভাইয়ের মধ্যে আবদুল মোতালেব ওরফে দুদু ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ২০৮ ভোট ও আরেক ভাই সাবেক চেয়ারমান একরামুল হক ওরফে দুলু মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৭৯ ভোট।

এ ছাড়া ওই ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবদুল মান্নান সরকার নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ হাজার ৬৯ ভোট, ইসলামী আন্দোলনের আবদুল হালিম হাতপাখা প্রতীকে ১৪৭ ভোট এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল সরকার ওরফে সংগ্রাম পেয়েছেন ৪ হাজার ৩৩৯ ভোট। ইউনিয়নে বাতিল ভোটের সংখ্যা ২৪২।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আজিজার রহমান বসুনিয়া বলেন, ‘ওই ইউনিয়নে তিন সহোদর চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করায় আমরা শান্তি ভঙ্গের আশঙ্কায় ছিলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেখানে শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন