এ ঘটনায় নিহত গোপালের ভাই পরিমল বিশ্বাস বাদী হয়ে শনিবার রাত সাড়ে আটটায় পাংশা থানায় হত্যা মামলা করেন। রাতেই অভিযান চালিয়ে গোপালের স্ত্রী চায়না সরকার ও শ্যালক বিজন সরকার গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ভাই হত্যার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন পরিমল।

পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক কুতুব আহমেদ বলেন, গুলিবিদ্ধ ওই ব্যক্তিকে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। তাঁর বুকের বাঁ দিকে গুলি লেগেছিল।

পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান বলেন, মামলার আসামি বিজন সরকার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে বিজন ও তাঁর বোন চায়নাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন