ফরহাদ হোসেন বলেন, তবে সাধারণ মানুষকে মাস্ক পরতে হবে। মাস্ক না ব্যবহার করলে আবারও করোনার সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে। শুধু মাস্কই পারে করোনার সংক্রমণ কমানোর পাশাপাশি ফুসফুসের নানা রোগ থেকে মানুষকে রক্ষা করতে। সে কারণে বিধিনিষেধ না দিয়ে মানুষকে মাস্ক পরতে আগ্রহী ও সচেতন করে তুলতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মুনসুর আলম খান, সিভিল সার্জন জাওয়াহেরুল আনাম সিদ্দিকী, মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক রফিকুল ইসলামসহ রাজনৈতিক নেতারা। সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, গণটিকা কার্যক্রমে জেলার ৩ উপজেলায় ৭২টি কেন্দ্রে প্রথম ডোজের ১ লাখ ৭ হাজার টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগের।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন