বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে একশ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী অতি মুনাফার লোভে নকলার বিভিন্ন স্থানে ভেজাল শিশুখাদ্য উৎপাদন করে আসছিলেন। গোপন সূত্রে এ খবর পেয়ে র‌্যাব-১৪–এর (জামালপুর-শেরপুর) অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামানের নেতৃত্বে র‌্যাব সদস্যরা বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার লয়খা এলাকার মোস্তাফিজুর রহমান ও কুর্শা নয়াবাড়ি এলাকার আবদুর রশিদের কারখানায় অভিযান চালান।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী  কর্মকর্তা (ইউএনও) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদুর রহমান ভেজাল ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদনের অভিযোগে মোস্তাফিজুর রহমানকে ৯০ হাজার টাকা ও আবদুর রশিদকে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

ইউএনও জাহিদুর রহমান জানান, জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে। অভিযানকালে র‌্যাব-১৪–এর অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মৃণাল কান্তি সাহাসহ র‌্যাবের অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

র‌্যাব–১৪–এর (জামালপুর-শেরপুর) অধিনায়ক স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামান বলেন, অভিযানের সময় মোস্তাফিজুর রহমান ও আবদুর রশিদের কারখানা থেকে বিপুল পরিমাণ ভেজাল শিশুখাদ্য ও সুজি জব্দ করা হয়। পরে এসব ভেজাল খাদ্যদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন