বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উপজেলা মহিলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান তাপসী রাবেয়ার সভাপতিত্বে কর্মিসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আজিজুর রহমান। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূঁইয়া।

নেতা–কর্মীরা জানান, চলতি বছরের ২৭ ফেব্রুয়ারি উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি বিলুপ্ত করে ফেরদৌসি ইসলামকে সভাপতি ও শারমীন সুলতানাকে সাধারণ সম্পাদক করে কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই কমিটির অনুমোদন দেন জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুমি সরকার ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াছমিন সুলতানা। এর আগের বিলুপ্ত কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাপসী রাবেয়া।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ফেরদৌসি ইসলাম শিবপুরের সাবেক সাংসদ সিরাজুল ইসলাম মোল্লার স্ত্রী। সিরাজুল ইসলাম মোল্লা যাতে শিবপুরের রাজনীতিতে প্রভাব বিস্তার করতে না পারেন, সে জন্য এমন উদ্যোগ নিয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুনুর রশীদ। অথচ হারুনুর রশীদ একসময় সিরাজুল ইসলাম মোল্লার পক্ষে ছিলেন। বিগত সংসদ নির্বাচনের পর থেকে তাঁদের মধ্যে সম্প্রীতি দেখা যাচ্ছে না।
কর্মিসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

হারুনুর রশীদ খান বলেন, ‘আমি কেন্দ্রীয় ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, এই কমিটি গঠনের দীর্ঘ ৯ মাস পেরিয়ে গেলেও তাঁরা আমাদের দলীয় কোনো কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করেননি। এই কমিটি আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী না করে একজন ব্যক্তির হাতকে শক্তিশালী করতে কাজ করছে। তাই আমরা উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটি প্রত্যাখ্যান করছি। এখন থেকে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের বিলুপ্ত আহ্বায়ক কমিটিই উপজেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে কাজ করবে।’

কর্মিসভার শেষ পর্যায়ে নতুন কমিটির ঘোষণা দেন হারুনুর রশীদ খান। এ সময় উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান তাপসী রাবেয়াকে আহ্বায়ক ও কুলসুম বেগম, অর্চনা রানী ঘোষ, রোমানা মোশারফকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের কমিটির ঘোষণা দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে ফেরদৌসি ইসলাম ও শারমীন সুলতানার মুঠোফোনে একাধিকবার কল করেন এই প্রতিবেদক। কিন্তু দুজনই ফোন ধরেননি।

জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূঁইয়া জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির সদস্যদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। তাঁরা যেহেতু দলীয় কোনো কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেন না, তাই তাঁদের প্রত্যাখ্যান করে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুমি সরকার বলেন, ‘উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হারুনুর রশীদ খান এভাবে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটি প্রত্যাখ্যান করে নতুন কমিটি ঘোষণা করতে পারেন না। অথচ এমন আয়োজনের বিষয়ে আমাদের কিছুই জানানো হয়নি। এই বিষয়ে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন