default-image

দিনাজপুর সদর উপজেলায় ১৩ বছর বয়সী এক মাদ্রাসাছাত্রকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ওই ছাত্রের বাবা বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পরে ওই শিক্ষককে আটকের পর গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

গ্রেপ্তার ওই শিক্ষকের নাম রবিউছ সানি (২৫)। তিনি চিরিরবন্দর উপজেলার শহরের পুলহাটের একটি হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক। তাঁর বাড়ি উপজেলার গলাহার গ্রামে।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ছেলেটি মাদ্রাসার আবাসিকে থেকে পড়াশোনা করছিল। ৫ মার্চ রাতে আবাসিকে থাকা অন্য শিক্ষার্থীরা ঘুমিয়ে পড়লে শিক্ষক রবিউছ সানি ছেলেটির মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করেন। ছেলেটি কান্না করলে শিক্ষক তার মুখ চেপে ধরেন ও ভয়ভীতি দেখান। ১১ মার্চ ছেলেটি ছুটি নিয়ে বাড়িতে গিয়ে তার মাকে বিষয়টি জানায়। গতকাল শুক্রবার দুপুরে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে গ্রামের লোকজন ওই শিক্ষককে আটক করে মারধর করে পুলিশের হাতে তুলে দেন।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাফফর হোসেন বলেন, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে আরও তিন শিক্ষার্থীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার সকালে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন