বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় পুমদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুল হাসান জানান, দুই সপ্তাহ ধরে মানসিক ভারসাম্যহীন একজন মহিলা রামপুর বাজার এলাকায় অসুস্থ অবস্থায় ঘোরাঘুরি করছিলেন। এ অবস্থায় আজ সকালে প্রসববেদনায় ছটফট করতে থাকলে নাসরিন, জেসমিন ও সাবিনা নামের তিনজন স্থানীয় মহিলা তাঁর বাচ্চা প্রসবে সহযোগিতা করেন।

খবর পেয়ে ইউএনও রাবেয়া পারভেজ মা ও নবজাতককে হোসেনপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। পরে তিনি হাসপাতালে গিয়ে মা ও শিশুর খোঁজখবর নেন। হোসেনপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা আবদুল্ল্যাহ আল শামীম জানান, ওই নবজাতকের ওজন আড়াই কেজির মতো। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রাথমিকভাবে তাদের ব্যয়ভার বহন করছে।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা এহসানুল হক বলেন, কেউ যদি এই সন্তানকে দত্তক নিতে চান, তাহলে যথাযথ আইন অনুযায়ী শিশু হস্তান্তরে সহায়তা করা হবে। আগ্রহী কাউকে না পাওয়া গেলে সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে ছোটমণি নিবাসে লালন–পালনের ব্যবস্থা করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন