default-image

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা ইউনিয়নে এক কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে ঘটনার এক সপ্তাহ পর মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ছাব্বির হোসেন মোল্লা (২৪) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করে আজ শনিবার আদালতের মাধ্যমে বরিশাল কেন্দ্রীয় করাগারে পাঠিয়েছে।

এ ঘটনায় হওয়া মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের একটি গ্রামের এক কিশোরীকে পাশের গ্রামের ছাব্বির হোসেন দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করছিলেন। সম্প্রতি তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। ২০ নভেম্বর রাত ৮টায় ছাব্বির হোসেন জরুরি কথা বলার জন্য ওই কিশোরীকে ফোন করে তাঁর বন্ধু আনু মোল্লার বাড়িতে ডেকে আনেন। ওই রাতে ছাব্বির কিশোরীকে ধর্ষণ করেন।

ওই কিশোরীর বাবা বলেন, ধর্ষণের পর ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় মাতবররা বিয়ে দেওয়ার জন্য উভয় পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। কিন্তু অভিযুক্ত ছাব্বির বিয়েতে রাজি না হওয়ায় তাঁরা মামলা করার সিদ্ধান্ত নেন।

আগৈলঝাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাজাহারুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে ছাব্বির হোসেনকে আসামি করে শুক্রবার রাতে থানায় একটি মামলা করেছেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে শনিবার আসামি ছাব্বিরকে গ্রেপ্তার করে। পরে আদালতের মাধ্যমে তাঁকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শনিবার ওই কিশোরীকে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন